শনিবার   ১৮ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ৫ ১৪২৬   ২২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

আজকের নাটোর
৯৪১

ভবিষ্যৎ নিয়ে চিন্তিত ফেসবুক

প্রকাশিত: ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮  

সময়টা খারাপ যাচ্ছে ফেসবুকের। অথচ এই খারাপ সূচনা খুব বেশি দিনের নয়। চলতি বছরের শুরু থেকে একের পর এক কেলেঙ্কারির কারণে ফেসবুক এখন নিন্দনিয় তালিকায়! তাই দিন দিন সঙ্কট তোপের মুখে ফেসবুক। এদিকে ফেসবুক চিন্তিত তাদের ভবিষ্যৎ নিয়ে

চলতি বছরের মার্চে ব্রিটিশ রাজনৈতিক পরামর্শক তথ্য বিশ্লেষক প্রতিষ্ঠান ক্যামব্রিজ অ্যানালিটিকার মাধ্যমে সোস্যাল মিডিয়া প্রতিষ্ঠানটির বিপুলসংখ্যক ব্যবহারকারীর তথ্য বেহাত হওয়ার ঘটনা প্রকাশিত হয়। শুরুতে পাঁচ কোটি ব্যবহারকারীর তথ্য বেহাতের কথা বলা হয়। তবে পরবর্তীতে ফেসবুকের পক্ষ থেকে জানানো হয়, মোট কোটি ৭০ লাখ ব্যবহারকারীর তথ্য হাতিয়ে নেয়া হয়েছে

ক্যামব্রিজ অ্যানালিটিকার একটি অ্যাপ ব্যবহারের অনুমতি দিয়েছিল ফেসবুক, যা প্রতিষ্ঠানটির জন্য কাল হয়ে দাঁড়িয়েছে। গোপনে ওই অ্যাপের মাধ্যমে কোটি কোটি ফেসবুক ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহ করে প্রতিষ্ঠানটি। এসব তথ্য গত মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রচারের কাজে ব্যবহার করা হয়

সম্প্রতি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কের ব্রায়ান্ট পার্ক- ফেইসবুকের গোপনীয়তা অভিজ্ঞতা বিষয়ক অনুষ্ঠানইট ইওর ফেইসবুক’- জানানো হয়, সফটওয়্যার ত্রুটির কারণে ৬৮ লাখ গ্রাহকের ছবি ফাঁস হয়েছে বলে জানিয়েছে ফেইসবুক। গ্রাহক পোস্ট করেননি এমন ছবিও ফাঁস হয়েছে এতে। ফেসবুক আরো জানায়, গ্রাহক যখন তাদের ছবি নিতে কোনো অ্যাপকে অনুমতি দেন, আমরা সাধারণত গ্রাহক যে ছবিগুলো তাদের টাইমলাইনে পোস্ট করেছেন সেগুলোর অনুমতি দিয়ে থাকি। এবারের ঘটনায় ত্রুটির কারণে ডেভেলপাররা সম্ভবত অন্যান্য ছবিরও অ্যাকসেস পেয়েছেন। গ্রাহকের টাইমলাইন ছবির পাশাপাশি অন্যান্য ফিচারের মধ্যে স্টোরিজ এবং মার্কেটপ্লেইসের ছবিও নিতে পেরেছেন ডেভেলপাররা। গ্রাহক আপলোড করেছেন কিন্তু ফেইসবুকে পোস্ট করেননি এমন ছবিও দেখতে পেরেছেন তারা

সাম্প্রতিক সময়ে কয়েক দফা তথ্য ফাঁসের শিকার হয়েছে ফেইসবুক। কেমব্রিজ অ্যানালিটিকা তথ্য কেলেঙ্কারির ঘটনায় তীব্র সমালোচনার মুখেও পড়তে হয়েছে প্রতিষ্ঠানটিকে

 

ইউরোপীয় ইউনিয়নের নতুন জেনারেল ডাটা প্রোটেকশন রেগুলেশন (জিডিপিআর) আইন অনুযায়ী, সোস্যাল মিডিয়া প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলোকে সর্বোচ্চ ৭২ ঘণ্টার মধ্যে গ্রাহক তথ্য বেহাতের ঘটনা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানাতে হবে। ফেসবুক বলছে, সাম্প্রতিক ত্রুটি শনাক্তের পর তা জনসম্মুখে প্রকাশের আগে এর প্রভাব অনুসন্ধানে তারা কিছুটা সময় নিয়েছে। তবে জিডিপিআরের স্ট্যান্ডার্ড অনুযায়ী, গত ২২ নভেম্বর ঘটনা আইরিশ ডাটা প্রোটেকশন কমিশনকে (আইডিপিসি) জানানো হয়েছে

ফেসবুকের সহপ্রতিষ্ঠাতা প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মার্ক জাকারবার্গ এরই মাঝে ক্ষমা চেয়েছেন। ফেসবুকের নিরাপত্তা ত্রুটি দূর করতে কয়েক বছর সময় প্রয়োজন বলে জানিয়েছেন তিনি। তবে এই কয়েকবছরে কী ঘটতে যাচ্ছে সেটা এখনো বলামুশকিল

প্রযুক্তির প্রতিটি অনুষঙ্গের ইতিবাচক নেতিবাচক দিক রয়েছে। ফেসবুকও এর বাইরে নয়। ফেসবুক ব্যবহারের বেশকিছু নেতিবাচক দিক এখন সামনে আসছে। বিশ্বব্যাপী এখন ফেসবুকের বিদ্যমান দুর্বলতাগুলো নিয়ে বেশি আলোচনা হচ্ছে। সেই সাথে জনপ্রিয়তাও হারাচ্ছে ফেসবুক

 

আজকের নাটোর
আজকের নাটোর
এই বিভাগের আরো খবর